অনেকটা ভালো আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, চলছে মিউজিক থেরাপিও


হাইলাইটস

  • প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আগের থেকে অনেকটা ভালো আছেন।
  • আগেই তাঁর কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তার ফলে তাঁকে কোভিড আইসিইউ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।
  • হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, তিনি চিকিত্‍‌সায় খুব ভালো সাড়া দিচ্ছেন।
  • মিউজিক থেরাপিও দেওয়া হচ্ছে ৮৪ বছরের অভিনেতাকে।

এই সময় বিনোদন ডেস্ক: প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আগের থেকে অনেকটা ভালো আছেন। আগেই তাঁর কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তার ফলে তাঁকে কোভিড আইসিইউ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, তিনি চিকিত্‍‌সায় খুব ভালো সাড়া দিচ্ছেন। মিউজিক থেরাপিও দেওয়া হচ্ছে ৮৫ বছরের অভিনেতাকে।

১৬ সদস্যের যে মেডিক্যাল বোর্ড সৌমিত্রের চিকিৎসা করছে তার প্রধান, ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ অরিন্দম কর শুক্রবার সকালে মেডিক্যাল বুলেটিনে জানান, আগের থেকে অনেকটা ভালো আছেন অভিনেতা। সবচেয়ে যেটা স্বস্তির খবর, তাঁর করোনা নেগেটিভ এসেছে। সেই কারণে তাঁকে কোভিড আইসিউ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। গত ৪০ ঘণ্টায় আর তাঁর জ্বর আসেনি। লিভার, কিডনি, হার্ট সব স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছে। এবং তাঁর অক্সিজেনের স্যাচুরেশন ৯৬ শতাংশের বেশি রয়েছে। মাত্র ৪০ শতাংশ অক্সিজেন সাপোর্ট তাঁকে দিতে হচ্ছে বর্তমানে। তাঁর সোডিয়াম ও পটাসিয়ামের মাত্রাও স্বাভাবিক হয়েছে।

এ ছাড়া ডাক্তার জানিয়েছেন, কিছু বলা হলে বুঝতে পারছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। সামান্য কথাও বলতে পারছেন। রাতে তাঁর ভালো ঘুম হয়েছে। তাঁকে প্রয়োজনীয় সব রকমের চিকিত্‍‌সা দেওয়া হচ্ছে। শুরু করা হয়েছে মিউজিক থেরাপিও। অভিনেতা যে ধরনের গান পছন্দ করেন, যেমন রবীন্দ্রসঙ্গীত ও তাঁর ফিল্মের গান, সে গুলি শোনানো হচ্ছে তাঁকে। তাতেও তিনি ভালোই সাড়া দিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা। শুক্রবার তাঁর আরও বেশকিছু পরীক্ষা-নীরিক্ষা করা হবে। আগামী ২-৩ দিনে তাঁর শারীরিক অবস্থার আরও কিছুটা উন্নতি হবে বলে আশা করছেন চিকিত্‍‌সকরা।

হারতে জানেন না ‘অপরাজিত’, আগের থেকে ভালো আছেন করোনামুক্ত সৌমিত্র

বুধবারই সত্যজিতের ফেলুদার জন্য দু’টি নতুন চিকিৎসা শুরু করেছেন ডাক্তাররা। কোভিড রিলেটেড এনসেফালোপ্যাথির জেরেই হাসপাতালের সোফায় বসে বই পড়ার পরের দিনই আচমকা অচৈতন্য হয়ে পড়েছিলেন সৌমিত্র। এই অবস্থায় তাঁর মস্তিষ্কের প্রদাহ কমাতে থাইমোসিন ব্যবহার করা শুরু করেছেন ডাক্তাররা। পাশাপাশি, শরীরের অনাক্রম্যতা ব্যবস্থাকে জোরদার করে তুলতে ও শ্বেত রক্তকোষ বাড়াতে ইমিউনোগ্লোবিউলিন ইঞ্জেকশনও দেওয়া হচ্ছে তাঁকে।

ক্যান্সারের পাশাপাশি প্রেশার-সুগার-সিওপিডির মতো কো-মর্বিডিটির কারণে সত্যজিতের অপুকে নিয়ে চিন্তা রয়েছে। তবে আশার কথা, প্রস্টেট ক্যান্সারের সূচক যে পিএসএ (প্রস্টেট স্পেসিফিক অ্যান্টিজেন), সংক্রমণের কারণে রক্তে তার মাত্রা মাঝে বেড়ে গেলেও এখন ফের তা কমে আসছে দ্রুত গতিতে। প্রদাহের অন্যতম দুই সূচক ইন্টারলিউকিন ও ফেরিটিনের মাত্রাও নিম্নগামী। তাই সৌমিত্রের চিকিৎসায় সেইমতো স্টেরয়েডের মাত্রাও কমিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.