|

আনন্দ ভূবন ম্যাগাজিনের সম্পাদক হিসেবে যোগ দিলেন কাবিউল আজিজ

আনন্দ ভূবন ম্যাগাজিনের সম্পাদক হিসেবে যোগ দিলেন সিনিয়র টিভি নিউজ প্রেজেন্টার ও নিউজরুম এডিটর কাবিউল আজিজ।
গতকাল ২১ সে জুলাই সন্ধ্যায় অফিসিয়াল মিটিং শেষে এ খবর নিশ্চিত করেন আনন্দ ভূবনের ফাউন্ডার মেম্বার এবং সহ সম্পাদক এমডি হৃদয় তালুকদার। তিনি আরো জানান আগামী ৩১ জুলাই ২০১৮ আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন কাবিউল আজিজ

কাবিউল আজিজ সম্পর্কে এমডি হৃদয় বলেন,
মাই টিভি, ডিবিসি নিউজ, বাংলা টিভি সহ বেশ কিছু গণমাধ্যমে দীর্ঘদিনের কাজের অভিজ্ঞতা আছে আজিজ ভাইয়ের, তিনি অনেক হেল্পফুল একজন মানুষ, আমার কাছে মনে হয়েছে আনন্দ ভূবন ম্যাগাজিনের সম্পাদনার জন্য আজিজ ভাই সব চেয়ে বেস্ট এবং আজিজ ভাইকে সম্পাদক হিসেবে পেয়ে আনন্দ ভূবন এখন আরো সমৃদ্ধ হবে।

এ সময় আলাপচারিতায় উঠে আসে কাবিউল আজিজের অনেক অজানা তথ্য।
তিনি বলেন,
আমি মিডিয়াতে আসবো এরকম স্বপ্ন আসলে কখনোই ছিলনা। আমার মিডিয়াতে আসা একদম হঠাৎ করেই। শুরুটা আসলে একটু মজারই ছিল। আমার খুব কাছের একবন্ধু আবৃত্তি শিখতো গাঙচিল নামে একটা আবৃত্তি শালায়। সে একদিন আমাকে বলল, চল্ আজিজ আজকে একজন ভাল টিচার আসবেন, তুইও আমার সাথে আবৃত্তির ক্লাস করবি। আমি গেলাম। বাংলাদেশ টেলিভিশনের একজন স্বনামধন্য সংবাদ উপস্থাপক ক্লাস নিলেন।আবৃত্তির পাশাপাশি কিভাবে একজন সফল সংবাদ উপস্থাপক হওয়া যায় তার বেশ কিছু কৌশলও উনি শেখালেন। সংবাদ উপস্থাপক ব্যাপারটা তখন থেকেই আমার মনে ধরলো। বলতে পারেন তখন থেকেই উপস্থাপক হবার স্বপ্ন দেখা শুরু হলো আমার। তবে সে সময় হাতে কলমে উপস্থাপনা শেখানোর কোনো ট্রেনিং সেন্টার বা ইনস্টিটিউশন এভেইলেবল ছিল না। যাইহোক খুঁজতে খুঁজতে হঠাৎ করে রিফ্লেকশন নামে ধানমন্ডিতে একটা ট্রেনিং সেন্টারের খোঁজ পেলাম। ওখানে টিচার হিসেবে পেলাম জেবা রহমানকে (বর্তমানে উনি বাংলাভিশনের সংবাদ উপস্থাপিকা)। এই জেবা রহমান-ই আমার মিডিয়া গুরু। যাঁর প্রেরণাই আমি আজ সংবাদ উপস্থাপক। উনি আমাকে অনেক সাহস দিতেন। আমাকে বলতেন আপনি ভবিষ্যতের সংবাদ উপস্থাপক। উনার কাছ থেকে এরকম উৎসাহ পেয়ে আমার ভেতরে একধরনের চ্যালেন্জ তৈরি হলো। শুরু হলো সংবাদ উপস্থাপক হবার সংগ্রাম।৷

প্রথম কত সালে কোন চ্যানেলে নিউজ প্রেজেন্টার হিসেবে কাজ শুরু করেন ?
জবাবে কাবিউল আজিজ নির্দ্বিধায় বলেন,

অনেক চড়াই-উৎরাই পার করে মাইটিভিতে সংবাদ উপস্থাপক হিসেবে আমি কাজ শুরু করলেও আমার শুরু হবার কথা ছিল বৈশাখী টিভিতে। বৈশাখী টিভিতে অডিশন/ইন্টারভিউ/ট্রেনিং সব প্রসেসিং শেষ করে On-air-এর অপেক্ষায় ছিলাম। কিন্তু ওদের ইন্টারনাল কিছু সমস্যার কারণে On-air হয়নি। পরে ২০১৪ সালের ২৬এপ্রিল মাইটিভিতেই প্রথম On-air হই। এখানে প্রায় ৩বছর কাজ করার পর ডিবিসি নিউজ চ্যানেলে নিউজরুম এডিটর হিসেবে কিছুদিন কাজ করি। ওখান থেকে এবছরের এপ্রিলে চলে আসি বাংলা টিভিতে।এখানে ন্যাশনাল ডেস্কে কাজ শুরু করি।

আনন্দ ভূবন ম্যাগাজিন নিয়ে আপনার চিন্তা ভাবনা কি ?
এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,
আনন্দ ভূবন ম্যাগাজিন পোর্টালের এরকম সাহসী উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। শুধুমাত্র বিনোদন ভিত্তিক নির্ভরযোগ্য অনলাইন পোর্টাল এখনো এদেশে নেই। আমি উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করি।
এবং আনন্দ ভূবন রিপোর্টারদের উদ্দেশে বলেন
যারা আনন্দ ভূবনে নিয়মিত লিখছেন তাদেরকে একটা কথা মাথায় রাখতে বলবো- “সত্যের সাথে থাকুন, এক্সক্লুসিভ কিছু করুন।”

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.