মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রিতে টাকা কামাও, জীবন গড়, প্রথম হও, এটাই কি তাহলে জীবন ?

২৪ ঘন্টা, মাত্র ২৪ ঘন্টাও হয়নি, এতেই দেখুন কি কি ঘটলো।

প্রচারে বিমুখ ট্যালেন্টেড শিল্পী “পৃথ্বীরাজ” মারা গেলো নিজের স্টুডিওতে বসেই। ২/৪ জন আপসোস করলেও, এদিকে বড় শিল্পীরা জমকালো আয়োজনে হাসিমুখে কিছু একটা সেলিব্রেট করছে কনসার্ট করে। ওই দিকে মৃত্যুর পথযাত্রী কিশোর দা বলছেন বিরক্ত করবেন না।

খেয়াল করে দেখেছেন? এখানে একটা জিনিস পরিষ্কার,

আপনি মরেযান, গুরুতর অসুস্থ হন, বা এক্সিডেন্ট করেন, কেউ আপনার জন্য থেমে থাকবে না। (মানে যখন আপনি হিট, সবাই আপনাকে নিয়েই ফিট) এরপর আপনি মরেযান, অসুস্থ হন, বা চৌরাস্তায় যেয়ে মুড়ি খান, এতে কারো কিছু আসে যায় না। (হ্যাঁ, কাছের লোকরা অবশ্য মন খারাপ বা আপসোস করবে, কিন্তু দিন শেষে তারাও আবার নিজেদের লাইফে ব্যাক করবে) এটাই স্বাভাবিক আর এটাই বাস্তবতা।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে,

তাহলে এই যান্ত্রিক নগরীতে শত ব্যস্ততার মাঝে একবারও কি নিজের জন্য সময় বের করে চিন্তা করে দেখেছেন? আসলে আমরা কি করছি ? কেন করছি ? বা আমাদের জীবনের আসল উদ্দেশ্য কি ? উদ্দেশ্য যদি খুঁজে পান তাহলে এর শেষ কোথায় ???

অন্যদিকে
ধার্মিকরা বলছে ধর্মপালন করো, আর নাস্তিকরা বলছে মানবতা আর জীবনকে উপভোগ করো।

এত কনফিউশনের ভিড়ে, এদিকে হতাশা ভরা শত ক্রাইসিস নিয়ে আপনি ভাবছেন টাকা কামাও, জীবন গড়, প্রথম হও, এত কিছু ভাবার সময় কই ?
আমি বলি
এটাই কি তাহলে জীবন ? মৃত্যুই কি এর শেষ ? এটাই কি এক জীবনের উদ্দেশ্য ? যেখানে সময় তো দূরের কথা, কেউ কারো জন্য থেমে থাকে না ????

এখানে লেখক MD Ridoy কাউকে জ্ঞানদেননি, শুধুমাত্র আপনারা যারা ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেন তাদের কাছেই প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন। চাইলে আপনারা নিচে যে যার ব্যক্তিগত উত্তর দিতে পারেন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.