ইরফানকেও বলিউডের পার্টিতে ডাকা হত না, তবে ও কখনও হতাশ হয়নি : সুতপা শিকদার


নিজস্ব প্রতিবেদন : সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডে ‘বহিরাগত’ তত্ত্বটি মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খানও বি-টাউনে ‘বহিরাগত’ই ছিলেন। বি-টাউনে  ‘বহিরাহত’ ও ‘অভ্যন্তরীণ’ নিয়ে যে বিতর্ক চলছে, তা নিয়ে নিজের মতামত দিলেন ইরফান খানের স্ত্রী সুতপা শিকদার। যে পোস্টে তিনি ‘বহিরাহত’র উদাহরণ হিসবে ইরফান খানকেই টেনে এনেছেন।

বি-টাউনে ‘বহিরাহত’ ও ‘অভ্যন্তরীণ’ নিয়ে আলোচনা প্রসঙ্গে নিজের ফেসবুকে লম্বা একটি লেখা শেয়ার করেছেন ইরফানের স্ত্রী সুতপা শিকদার। যেখানে তিনি বি-টাউন নিয়ে নানান কথা তুলে ধরেছেন। নিজের পোস্টে ইরফানকে ‘মাসীহা অফ আউটসাইডার’ বলে সম্বোধন করেছেন। সুতপা শিকদার লিখেছেন, ”যদি আপনি আপনার কাজের আধ্যাত্মিক অনুসন্ধান করো, তাহলে কখনওই পার্টিতে না আমন্ত্রণ জানালে, ছবির প্রমিয়ারে না এলে দুঃখ পাবেন না। বহুবছর ধরে ফিল্ম ম্যাগাজিনের প্রথম পাতায় ইরফানের জায়গা হয়নি।  তবে ও কখনওই লোকজনকে নিয়ে খারাপ কথা বলে, গসিপ করে সময় নষ্ট করেনি। এমনি অবসাদেও ভোগেনি। কারণ, ও ওঁর শিল্পকে উপভোগ করতে জানত। অনেকসময় ও নিজেই ফিল্ম ম্যাগাজিনের কভার পেজে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থেকেছে।”

সুতপা আরও লিখেছেন, ” বলিউডে তথাকথিত অভ্যন্তরীণরা ওকে হলি পার্টিতে ডাকেনি, তবে আবার কেউ কোনও শোতে ওকে নিয়ে হাসি ঠাট্টা করারও সাহস দেখায়নি।” ইরফানের স্ত্রীর কথায়, ”বলিউড কারোর সম্পত্তি নয়, যতক্ষণ না আপনি সেটাকে কারোর সম্পত্তি ভাবছেন। ইরফানের হলিউডের ছবিতে কাজ করার প্রস্তাবের বিষয়ে বলিউড কিছুই করেনি।” সুতপা শিকদারের কথায়, ”ইরফান কোনওদিন বলিউডের পার্টিতে যাওয়ার প্রয়োজন বোধও করেনি। একদিকে বলিউডের পার্টিগুলোকে বিষাক্ত বলছি, আবার ওই পার্টিতে না ডাকলে অসন্তুষ্ট হচ্ছি। এটা তো অদ্ভুত”।

Grave Warning : perhaps longest post in the FB so if you are absolutely bored read on. Who is an outsider/one who comes…

Posted by Sutapa Sikdar on Wednesday, 30 September 2020

প্রসঙ্গত, ইরফান খানের মৃত্যু পর থেকে মাঝে মধ্যেই তাঁকে নিয়ে বিভিন্ন কিছু শেয়ার করতে দেখা গিয়েছেন সুতপা শিকদারকে। তবে বলিউডে  ‘বহিরাহত’ ও ‘অভ্যন্তরীণ’ নিয়ে যে বিতর্ক চলছে, সেবিষয়ে ইরফান খানের উদাহরণ নিয়ে সুতপা প্রথমবার কিছু পোস্ট করলেন।





Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.