কোভিড রোগীদের সাহায্য করতে ‘হেল্প লাইন নম্বর’ চালু মিমির


হাইলাইটস

  • মানুষের অসহায় অবস্থা দেখে নিজের শোক সামলে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই সাংসদ।
  • করোনা পরিস্থিতিতে যদি সাধারণ মানুষ বেড না পান, অক্সিজেন, খাবার না পান, তখন তাঁকে সাহায্য করবেন অভিনেত্রী স্বয়ং।
  • সাধারণ মানুষ সাহায্যের জন্য ফোন করতে পারেন 7688012811 নম্বরে।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন আগেই নিজের সন্তানসম পোষ্য চিকুকে হারিয়েছেন তিনি। আপনজন হারানোর শোকে ডুবেছিলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। কিন্তু সাধারণ মানুষের অসহায় অবস্থা দেখে নিজের শোক সামলে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই সাংসদ। করোনা পরিস্থিতিতে যদি সাধারণ মানুষ বেড না পান, অক্সিজেন, খাবার না পান, তখন তাঁকে সাহায্য করবেন অভিনেত্রী স্বয়ং। সাধারণ মানুষ সাহায্যের জন্য ফোন করতে পারেন 7688012811 নম্বরে। হেল্প লাইন নম্বরটি চালু করেছেন মিমি। নম্বরটি ঠিকমতো চলছে কিনা, তা যাচাই করেছেন অভিনেত্রী নিজেই।

মিমি জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতিতে হাসপাতাল, অক্সিজেন, প্লাজমা সংক্রান্ত যে কোনও সমস্যায় পড়লে সাধারণ মানুষ এই নম্বরে ফোন করতে পারেন। সাধ্যমতো সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন সাংসদ। দেশজুড়ে যখন ভয়াবহ আকার নিয়েছে করোনা পরিস্থিতি তখন সাংসদের এই পদক্ষেপ মন জয় করে নিয়েছে অধিকাংশেরই। সিংহভাগের মন জয় করলেও অনলাইনে ট্রোলের মুখে পড়তে হয়েছে মিমি চক্রবর্তীকে। কেন এতদিন করোনা রোগীদের সাহায্য করতে কোনও পদক্ষেপ নেননি তিনি।

নয়া চমক দেবশ্রীর, এবার নতুন ভূমিকায় প্রাক্তন বিধায়ক
প্রসঙ্গত, সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের মন খারাপের কথা নিজেই জানিয়েছিলেন তিনি। প্রিয় পোষ্যের পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন করেন অভিনেত্রী। ‘চিকু ম্যাক্স অ্যান্ড মম্মি’ নামের একটি ইনস্টাগ্রাম পেজ থেকে পোস্ট করা হয় সেই ছবি।

প্রিয় পোষ্য চিকুর পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন করলেন মিমি
উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই বই পড়ার ছবি আপলোড করে ট্রোল হতে হয়েছিল মিমির প্রিয় বান্ধবী তথা তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহানকে। জনৈক নেট নাগরিকদের কটাক্ষ করে বলেন, ‘হাসপাতালে বেড, প্লাজমা এবং অক্সিজেন খুঁজছি মানুষের জন্য। আপনিও রবিবারে একই চেষ্টা করছে পারেন।’ নিছকই সপ্তাহের শেষে ব্যক্তিগত জীবনের কিছু মুহূর্ত শেয়ার করেছিলেন নুসরত। সাদা পোশাকে মেক আপ ছাড়াই ঠিকরে পড়ছিল নুসরতের সৌন্দর্য। কিন্তু নায়িকা শিকার হয় ট্রোলবাহিনীর।

টাটকা ভিডিয়ো খবর পেতে সাবস্ক্রাইব করুন এই সময় ডিজিটালের YouTube পেজে। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন।

ফাইল ফটো (ছবি- ফেসবুক)



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.