ছেলের হাত ধরে রণবীরের জীবনে ফিরবেন কঙ্কনা! বিচ্ছেদের ৬ বছর পর কাছাকাছি দুজনে


নিজস্ব প্রতিবেদন- ২০১০-এ বিয়ে করেন রণবীর শোরে ও কঙ্কনা সেনশর্মা। পাঁচ বছরের মাথায় অর্থাৎ ২০১৫ থেকেই আলাদা থাকেন কঙ্কনা সেন শর্মা ও রণবীর শোরে (Ranvir Shorey)। বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁদের। তবে তাঁদের একমাত্র সন্তান হ্যারন (Haroon Shorey) তাঁর বেড়ে ওঠায় বাবা ও মাকে কোনওভাবেই যেন মিস না করেন সেই দিকে খেয়াল রেখেছিলেন দুজনেই। বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ার পর তাঁরা আলাদা হয়ে গেলেও ছেলেকে তাঁদের দুজনের ভালবাসা থেকে বঞ্চিত করেন নি। 

আরও পড়ুন: এক্সক্লুসিভ: ১০ সেপ্টেম্বরই মা হচ্ছেন Nusrat, সিভিল স্যুট ফাইল করলেন নিখিল

একে অপরকে ভালবেসে বিয়ে করেছিলেন রণবীর শোরে (Ranvir Shorey) এবং কঙ্কনা সেনশর্মা (Konkona Sen Sharma)। পরে মতের মিল না হওয়ায় আলাদা হয়ে যান তাঁরা। যদিও মুখ দেখাদেখি বন্ধ নয়, বরং বন্ধুত্ব রেখেছেন দুজনে। ছেলের বড় হয়ে ওঠায় কোনও আঁচ যাতে না লাগে তার জন্যই দুজনে সম্পর্ক রেখেছেন। ছেলের দায়িত্ব ভাগ করে নিয়েছেন দুজনে। সদ্য এক সাক্ষাতকারে রণবীরের কাছ থেকে এমনই তথ্য পাওয়া গিয়েছে। তাঁর ছেলে এখন নিজের ইচ্ছে মতো বাবা ও মায়ের কাছে থাকে। আপাতত এক সপ্তাহ করে সময় ভাগ করে নিয়েছে তাঁদের একমাত্র সন্তান।

রণবীর আরও বলেন, ‘আমাদের সিদ্ধান্তের প্রভাব কোনওভাবেই আমাদের সন্তানের উপর পরতে দিতে চাই নি। তাই এক বাড়িতে একসঙ্গে থাকতে পারিনি। কিন্তু একই পাড়া থাকার চেষ্টা করেছি। ওর মা আর আমি প্রতিবেশী হওয়ার চেষ্টা করেছি যাতে ও কাউকে মিস না করে। জোর করে ওর ওপর আমাদের কোনও সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিইনি। ওর যাঁর সঙ্গে যখন থাকার ইচ্ছে হয় তখন তাঁর সঙ্গেই থাকে। লকডাউনে আমরা সকলেই গৃহবন্দী, কাজ নেই। তাই এক সপ্তাহ ও আমার বাড়িতে থাকে, পরের সপ্তাহে যায় ওর মায়ের কাছে।’

 কিছুদিন আগে ছেলের জন্মদিনেও রণবীর একটি ছবি পোস্ট করে শুভকামনা জানান, এবং পোস্টে লেখেন ‘আমাদের জীবনে আলো হয়ে এসেছ তুমি’। সন্তানের মুখের দিকে চেয়ে দুজনে মান-অভিমান ভুলেছেন। সন্তানকে তাঁর জীবনের লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পথ সুগম করাই এখন একমাত্র উদ্দ্যেশ্য তাঁদের।





Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.