|

তামিমকে আউট করেই বেশি আত্মবিশ্বাস পেয়েছেন মাশরাফি

সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার সংজ্ঞাটা কী, সেটি আজ মাশরাফি বিন মুর্তজার পারফরম্যান্স দেখলেই বোঝা যাবে। ১৩ বছরের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে একবারই ৪ উইকেট পেয়েছেন, ২০১২ সালের জুলাইয়ে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। বেলফাস্টে ১৯ রানে নিয়েছিলেন ৪ উইকেট। মাশরাফি আজ ছাড়িয়ে গেলেন সেটিকেও।

মাশরাফির কাছে অবশ্য বিপিএলের চেয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচের পারফরম্যান্স বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সরাসরি না বললেও বেলফাস্টের পারফরম্যান্সটা যে তাঁর কাছে এগিয়ে, রংপুর অধিনায়কের কথাতেই পরিষ্কার, ‘আমি সব সময়ই আন্তর্জাতিক ম্যাচ হিসাব করি। আমার কাছে আন্তর্জাতিক ম্যাচের গুরুত্ব বেশি থাকে। তবে আমি যখন যেটা খেলি সর্বোচ্চ দিয়ে খেলার চেষ্টা করি। যদি আপনি বিশেষ গুরুত্বের কথা বলেন, শুধু আন্তর্জাতিক ম্যাচ হিসাব করি।’

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে সেরা বোলিং করেছেন। আজ যে ৪ উইকেট পেয়েছেন, কোনটি বেশি আনন্দ দিয়েছে মাশরাফিকে? রংপুর অধিনায়ক বললেন, তামিম ইকবালের আউটটা তাঁকে বেশি আনন্দ দিয়েছে। কেন? মাশরাফির ব্যাখ্যা শুনলেই বুঝতে পারবেন, ‘চার উইকেটের ভেতরে অবশ্যই তামিমের উইকেটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। স্মিথেরটাও আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তবে তামিম সব সময় আমাকে ভালোভাবে সামলেছে। দীর্ঘদিন তামিম আমাকে ভালো খেলে আসছে। টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডে বা প্রথম শ্রেণির ম্যাচ যেটাই খেলেছি, ও সব সময় আমাকে ভালো সামলায়। ওর স্ট্রাইকরেটও ভালো থাকে আমার বিপক্ষে। ওর উইকেটটা অবশ্যই আমার জন্য ইতিবাচক ছিল। যেহেতু ও আমার বিপক্ষে সব সময়ই সফল হয়। ওর উইকেটটা নেওয়ার কারণে আমার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। স্মিথ, লুইস, ওরা কী করতে পারতে পারে আমরা সবাই জানি। তবুও আমার ক্ষেত্রে তামিমের উইকেটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

আরো পড়ুন – মিরপুরে স্টেডিয়ামে পাঁচ ভারতীয় “জুয়াড়িকে” জরিমানা

বিপিএলে জুয়াড়িদের তৎপরতা নতুন কিছু নয়। এই বিপিএলেও দেশি-বিদেশি জুয়াড়িদের তৎপরতা দেখা যাচ্ছে প্রায় প্রতি ম্যাচেই। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিপিএলের প্রথম দুদিনেই পুলিশ আটক করেছে ১৫ জনকে। আজ করেছে আরও পাঁচজনকে।

এ পাঁচজনের প্রত্যেকে ভারতীয়। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ভ্রাম্যমাণ আদালত পাঁচ ভারতীয়কে জরিমানা করেছেন ৪ হাজার করে মোট ২০ হাজার টাকা। জুয়াড়িদের শাস্তি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল হাসান। জুয়াড়িদের শাস্তির বিষয়ে তিনি প্রথম আলোকে বলেছেন, ‘আমরা আজ পাঁচজনকে আটক করেছি, এর মধ্যে পাঁচজনই বিদেশি নাগরিক। কাল আরেক ভারতীয় জুয়াড়িকে আটক করেছিলাম। প্রত্যেকের আর্থিক দণ্ডের পাশাপাশি মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। তাদের মাঠে আসার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।’

ইমরুল আরও জানালেন, জুয়াড়িদের পাশাপাশি আরও দুজনকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। টাকা নিয়ে অবৈধভাবে স্টেডিয়ামে দর্শক ঢোকানোয় ১১ দিনের আটকাদেশ দেওয়া হয় সজীব আহমেদ (২১) নামে এক বাংলাদেশিকে। অন্যজনকে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ইমরুল বললেন, ‘ওই দর্শক (সজীব) কারাদণ্ডের শাস্তি এড়াতে পারতেন। কিন্তু তিনি বিসিবির নিরাপত্তাকর্মীদের উল্টো হুমকি-ধমকি দিচ্ছিলেন।’

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.