‘ধর্ম জিতলে মানুষ মরবে,মানুষ জিতলে ধর্ম বাঁচবে’, নাম না করে BJP-কে খোঁচা দেবের


নিজস্ব প্রতিবেদন: সোনারপুর দক্ষিণের তৃণমূলের তারকা প্রার্থী লাভলি মৈত্রর সমর্থনে প্রচারে নামলেন তৃণমূল সাংসদ অভিনেতা দেব (Dev)। সোনারপুরের দর্শকের কাছে সুপারস্টারের আর্জি-যারা ধর্মের নামে রাজনীতি করছেন দয়া করে তাদের হাত শক্ত করবেন না। তিনি বলেন -“ধর্ম জিতলে মানুষ মরবে, মানুষ জিতলে ধর্ম বাঁচবে, মানুষ বাঁচবে। শুধু মন্দির তৈরি হবে, মসজিদও হবে কিন্তু মানুষের জন্য উন্নয়ন হবে না। হাসপাতাল, রাস্তাঘাট তৈরি হবে না। যারা রাম আর রহিমের মাঝে দেওয়াল তৈরি করছেন এবার তাদের খেলা শেষ হবে। এদিন আড়াপাচে সভা থেকে অভিনেতা ও সাংসদ দীপক অধিকারী বিজেপির নাম না করে তাঁদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন। সৌজন্যের রাজনীতিতেই বিশ্বাসী তিনি, কাদা ছোড়াছুড়ি একেবারেই পছন্দ না তাঁর। এদিন তাঁকে অন্য মেজাজে পাওয়া গেল।

আরও পড়ুন: বাঙালি আবেগ উস্কে পয়লা বৈশাখে ফের মুক্তি পাচ্ছে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ‘তারিখ’

এদিন তাঁকে দেখতে রোদ উপেক্ষা করেই প্রচুর মহিলা সভায় হাজির হন। সম্পূর্ণ মাঠ ভরে যায় মানুষের ভিড়ে। তিনি এও বলেন-‘ আমি রাজনীতি শেখাতে আসি নি। আমি শুধু বলতে এসেছি আপনারা নিজেদের গনতান্ত্রিক অধিকার স্বাধীনভাবেই প্রযোগ করুন। যে দলকে ক্ষমতায় আনতে চান সেই দলকেই বেছে নিন। শুধু প্রয়োগ করার আগে একবার ভেবে নেবেন যাঁদের জিতিয়ে আনবেন তাঁরা অসময়ে বা বিপদে আপনার পাশে ছিলেন তো? আগামী দিনেও থাকবেন তো? আমি শুধু বলতে পারি গত ১০ বছরে আমাদের সরকার যে উন্নয়ন করেছে তা গত ৭০ বছরেও হয় নি। করোনা আবহে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি মানুষের মাঝে যেভাবে কাজ করেছেন দেশের অন্য কোন মুখ্যমন্ত্রী রাস্তায় নেমে এভাবে কাজ করেন নি। তাই মমতা ব্যানার্জির উন্নয়নকে তুলে ধরতে এসেছি। তার হয়ে ভোট চাইতে এসেছি। আমি চাইব এই নির্বাচন হোক উন্নয়নের ভিত্তিতে।’

আরও পড়ুন: ঠিক যেন লাল পরী, উরুর মাঝে উঁকি দিচ্ছে ‘Madhumita’-র ট্যাটু

দেবের মতে-‘এই নির্বাচন কিসের জন্য হচ্ছে বুঝতে অসুবিধে হচ্ছে এখন। বাইরের রাজ্যের লোকজন এসে ধর্ম বোঝাচ্ছে। আমি কোন ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করতে আসিনি। মানুষ বেঁচে থাকলে ধর্ম হবে, মন্দির হবে মসজিদ হবে। তবে শুধু মন্দির মসজিদ তৈরি হলে সাধারণ মানুষের দুঃখ, কষ্ট মিটবে না। তাঁদের সমস্যার সমধান হবে না। তাই ভেবে নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রযোগ করবেন। সোনারপুরের মানুষকে এদিন দেব (Dev) দু নম্বর বোতাম টিপে জোড়াফুল চিহ্নে ভোট দিয়ে লাভলি মৈত্রকে জেতানোর অনুরোধও জানান। 

 





Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.