নাটক বন্ধ, কারণ জানালেন গোয়েন্দা জুনিয়র!


হাইলাইটস

  • ‘দেশের নামে’, নাটকটি শুক্রবার কল্যাণীতে মঞ্চস্থ হওয়ার কথা ছিল।
  • খোদ ঋতব্রতর অভিযোগ, তা চাপ দিয়ে বন্ধ করিয়ে দেওয়া হয়েছে।
  • কল্যানীর তৃণমূলের শহর সভাপতি অরূপ মুখোপাধ্যায় বলেছেন, ‘এমন কোনও কিছু হতেই পারে না। অভিযোগ মিথ্যা।’

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: তরুণ অভিনেতা তথা নাট্যকর্মী ঋতব্রত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এবং তাঁরই অভিনিত নাটক ‘বন্ধ’ করিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল। ‘দেশের নামে’, নাটকটি শুক্রবার কল্যাণীতে মঞ্চস্থ হওয়ার কথা ছিল। খোদ ঋতব্রতর অভিযোগ, তা চাপ দিয়ে বন্ধ করিয়ে দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ফেসবুকে একটি VIDEO-তে তিনি বলেছেন, ‘শো আমাদের করতে দেওয়া হবে না। আমাদের ফোন করা হয়েছে। শো বন্ধ করাতে পারে সেই ক্ষমতা কাদের থাকে? তা বলার অপেক্ষা রাখে না, যারা ক্ষমতায় থাকে, তাদেরই এই ক্ষমতা থাকে।’ বার বার বলেছেন, প্রশাসনিক চাপে এই নাটক বন্ধ হয়েছে।

যদি কল্যানীর তৃণমূলের শহর সভাপতি অরূপ মুখোপাধ্যায় বলেছেন, ‘এমন কোনও কিছু হতেই পারে না। অভিযোগ মিথ্যা। আমি তাও খোঁজ নিয়ে দেখছি।’ নদিয়া জেলা প্রশাসনের এক পদস্থ কর্তার দাবি, ‘এর মধ্যে প্রশাসন কোনওভাবে আসেনি। আসার কথাও নয়!’

মৈনাক ভৌমিকের দ্বিতীয় থ্রিলার ছিল ‘গোয়েন্দা জুনিয়র’। সেখানে ‘জেনারেশন আমি’র অপুকে ‘গোয়েন্দা জুনিয়র’ বিক্রম হিসাবে দেখা গিয়েছিল।

VIDEO-তে ঋতব্রতর দাবি, ‘অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ জায়গা থেকে’ কল্যাণীর শো ‘বন্ধ করিয়ে দেওয়া হয়েছে’। তাঁর অভিযোগ, এটা একে বারেই রাজনৈতিক নাটক। নাটকটির ক্যাপশনে, ‘মানুষের জন্য দেশের জন্য কিছু করেননি, যা করেছেন নিজের জন্য।’ সেটার জন্যই শো বন্ধ করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে দাবি তাঁর।

জানা গিয়েছে, কল্যাণীর তাপস সেন কুমার রায় নাট্য ভবনে। কিন্তু তা বাতিল করা হয় বলেই তাঁর দাবি।

গোয়েন্দাপ্রধানের নাম নিয়েই ব্ল্যাকমেল অঙ্কুশের বাপ্পাদাকে

VIDEO পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, ‘আমাদের নাটক, ইউনিভার্সিটি ফ্রেন্ডস গ্রুপ নিবেদিত, ‘দেশের নামে’ -এর আগামীকাল যে অভিনয় ছিল, তা বন্ধ করিয়ে দেওয়া হয়েছে। যাঁরা আয়োজন করেছিলেন, আমন্ত্রণ করে নিয়ে যাচ্ছিলেন আমাদের, তাদের বলা হয় উপরমহল থেকে, ‘এই নাটকটি করবেন না, আপনাদের ভালোর জন্যই বলছি!’ তিনি জানিয়েছেন, এটা খারাপ খবর, আবার ভালো খবরও, এটাই বিজয়। বলেছেন, ‘আমাদের নাটকের বার্তা ঠিক জায়গায় পৌঁছেছে! ওরা ভয় পেয়েছে। সকলেই কলেজ স্টুডেন্ট, তাদের নাটককে ভয় পেয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’
এর আগেও নাটক জোর করে বন্ধ করার অভিযোগ সামনে এসেছিল। ২০১৯ সালে ‘হিন্দু চোর’ নাটকের প্রদর্শন বন্ধ করা হয়েছিল শহরে। অভিযোগ ছিল পুলিশ এসে নাটক বন্ধ করতে বলে।



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.