‘পাকা বাচ্চা’ থেকে সফল কালারিস্ট


হাইলাইটস

  • অরিত্র আর বাচ্চা নেই। খুব শিগগির তাঁকে দেখা যাবে একটি জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্মের হিন্দি সিরিজে।
  • দেশের তাবড় বিজ্ঞাপন সংস্থা আর বিদেশী নানা ছবির কালারিস্ট হিসেবে কাজ করছেন তিনি।
  • এখন মিডিয়া সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করছে অরিত্র দত্ত বণিক।

দেবলীনা ঘোষ

অরিত্র দত্ত বণিককে মনে আছে? হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন। সেই ‘পাকা বাচ্চা’, যে নায়ক-নায়িকার প্রেমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করতো। সেই অরিত্র আর বাচ্চা নেই। খুব শিগগির তাঁকে দেখা যাবে একটি জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্মের হিন্দি সিরিজে। কিন্তু প্রশ্ন হল এতদিন কী করছিলেন তিনি? উত্তর জানলে অবাক হবেন। দেশের তাবড় বিজ্ঞাপন সংস্থা আর বিদেশী নানা ছবির কালারিস্ট হিসেবে কাজ করছেন তিনি।

‘ক্লাস টুয়েলভের পর থেকেই আমার একটু একটু করে কম্পিউটার সায়েন্সের প্রতি আগ্রহ বাড়ে। আমি ছোটবেলায় যখন অভিনয় করতাম অ্যানালগ ক্যামেরায় শুটিং হতো। সেটা একেবারে অন্য রকম একটা ব্যাপার ছিল। তারপর ধীরে ধীরে টেকনোলজি বদলায়। আর আমারও আগ্রহ বাড়তে থাকে। আমি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সোশিওলজি নিয়ে পড়াশোনা শেষ করি। এখন মিডিয়া সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করছি। পাশাপাশি কাজও করে যাচ্ছি’, বলছেন অরিত্র।

অভিনয় থেকে বিরতি নিলেন কেন? অরিত্রর উত্তর, ‘আমি একই ধরনের চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পাচ্ছিলাম। ‘পাকা বাচ্চা’, যে নায়ক-নায়িকার মধ্যে প্রেম করিয়ে দিচ্ছে। একটু বড় হওয়ার পর কয়েকটা সিরিয়াস চরিত্রে অভিনয় করি। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি। দর্শকরা যেখানে দেখতেন, বলতেন, ‘আপনার ওমুক চরিত্রে অভিনয় দেখে খুব হেসেছি। অথচ চরিত্রটা একটুও হাসির নয়। ভেবে দেখলাম দর্শকরা আমাকেই হাসির বস্তু হিসেবে দেখছেন। তাই মনে হলো বিরতি নিই’।

Mustafa Raj-Priyamani: ‘প্রিয়মণির সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক মুস্তাফার’, দাবি ঘিরে চাঞ্চল্য
নিজের একটা সংস্থা আছে অরিত্রর। যেখানে নানা ধরনের কাজ করেন তিনি। ইচ্ছে রয়েছে সেই সংস্থা থেকেই একটা মিডিয়া জার্নাল প্রকাশ করবেন। ‘আমাদের এখানে মিডিয়া জার্নাল নেই। যেখানে মিডিয়া সায়েন্স নিয়ে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়। তাই এ রকম একটা জার্নাল বের করবো তাড়াতাড়ি। আমাদের সংস্থা থেকে আমরা একটু অন্য ধরনের কাজ করি। এখনও মেনস্ট্রিম হলিউড ছবির কাজ করিনি। তবে মিউজিক ভিডিয়ো থেকে ইনডিপেনডেন্ট ফিল্ম-এ রকম অনেক বিদেশী কাজ করেছি। কিছুদিন আগে সিরিয়ার যুদ্ধ নিয়ে তৈরি একটা ছবির কালারের কাজ করলাম। যেখানে কালারের গুরুত্ব খুব বেশি। এ ছাড়া টাটা, ডাবর, আইটিসি, সহ নামী ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনের কাজই আমরা করি’, বলছেন অরিত্র।

একটা সময়ে বাংলা ইন্ডাস্ট্রির বাণিজ্যিক ছবি করেছেন অনেক। তা হলে পোস্ট প্রোডাকশনের জন্য বাংলা বাণিজ্যিক ছবিকে বেছে নিচ্ছেন না কেন? ‘আমাদের সেই পরিকাঠামো নেই। অনেক সময় ফ্রিলান্সার হিসেবে কাজ করি। কিন্তু পুরো ছবির কাজ আমাদের সংস্থা থেকে করা এখনই সম্ভব নয়। তবে কোনও পরিচালক বললে, তখন করে দিই। কিছুদিন আগে বাংলার এক জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মের রহস্য-রোমাঞ্চ সিরিজের পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ করলাম’, বলছেন অভিনেতা।

তা হলে কি আর বাংলা ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যাবে না অরিত্রকে? ‘কিছুদিন আগেই একটা শর্ট ফিল্মে অভিনয় করলাম। বরুণ চন্দর সঙ্গে। আরও কয়েকটা কাজ করছি। হিন্দি সিরিজের পাশাপাশি বাংলাতেও কাজ করবো। কিন্তু টাইপকাস্ট হতে চাই না’, বক্তব্য তাঁর।

Sonam Kapoor: অন্তঃসত্ত্বা সোনম কাপুর! অসহ্য যন্ত্রণার কথা জানালেন নায়িকা
যাঁরা বলেন ছোট থেকে অভিনয় করলে বা অতিরিক্ত এক্সপোজার পেলে পড়াশোনা হয় না তাঁদের কিছু বলতে চান? অরিত্র হেসে বললেন, ‘এটা অনেকের ধারণা ছিল। তবে এখন মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি বদলেছে। অনেকেই পড়াশোনা করেন না। তাঁরা কি সবাই অভিনয় করেন? যাঁর পড়াশোনা হওয়ার, হবে। যাঁর না হওয়ার, হবে না। আমি চেয়েছি পড়াশোনা করতে, তাই করেছি। টেকনোলজি আমাকে আকর্ষণ করে। তাই প্রথাগত শিক্ষার বাইরে আমি নিজে নিজেই পড়াশোনা করি বিষয়গুলো নিয়ে’, বলছেন অরিত্র।



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.