প্রয়াত হলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী দীপা


নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রয়াত হলেন বিখ্যাত বাংলা ছবি ‘বিলম্বিত লয়’-এর অভিনেত্রী তথা এককালের দুরন্ত ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ন দীপা চট্টোপাধ্যায়। তবে তাঁকে বাঙালি চেনে সম্পূর্ণ অন্য পরিচয়ে। তিনি কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী।

রবিবার কলকাতার এক হাসপাতালে প্রয়াত হলেন দীপা চট্টোপাধ্যায়। বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। ৩১ মার্চে কিডনিজনিত অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। প্রসঙ্গত গত নভেম্বরেই মারা গিয়েছেন সৌমিত্র (Soumitra Chatterjee)। তার চার মাসের মাথায় মৃত্যু হল তাঁর স্ত্রী দীপার। দীপা রেখে গেলেন এক পুত্র ও এক কন্যাকে। কন্যা পৌলমী বসুই সংবাদমাধ্যমে মায়ের মৃত্যুর কথা জানান। তিনি জানান, বাবা চলে যাওয়ার পরে বাঁচার সমস্ত আগ্রহই হারিয়ে ফেলেছিলেন মা।

আরও পড়ুন: দাদাসাহেব ফালকে পাচ্ছেন Rajinikanth, ঘোষণা কেন্দ্রের

১৯৬০ সালে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিয়ে হয় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় দীপার। বরাবর পর্দার আড়ালেই স্বচ্ছন্দ থেকেছেন দীপা। মন দিয়ে সংসার সামলেছেন আর সৌমিত্র তাঁর কেরিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলি করার দিকে মনোনিবেশ করতে পেরেছেন।

তবে কখনও যে পর্দার আড়াল সরিয়ে সামনে আসেননি দীপা, তা-ও নয়। তিনি কিঞ্চিৎ অভিনয়ও করেছেন। এবং করেছেন একেবারে স্বয়ং মহানায়কের (Uttam Kumar) ছবিতে। ‘বিলম্বিত লয়’ ছবিতে তিনি উত্তম-সুপ্রিয়ার (Supriya Devi) সঙ্গে কাজ করেছেন। ১৯৯৮ সালে স্বামী সৌমিত্রের উপর করা Catherine Berge-এর তথ্যচিত্রেও অভিনয় করেছেন দীপা। আর অভিনয় করেন ২০০১ সালের ‘দুর্গা’ ছবিটিতে। 

আরও পড়ুন: ”আমার আর ঈশ্বরের খুব সুন্দর সম্পর্ক”, স্ত্রীর অসুস্থতা নিয়ে আবেগঘন পোস্ট Anupam-র





Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.