|

ভাইজান শাকিবের অভিনয় গুণে, দেশে চলছে ঈদের আনন্দ!

অনেক বাঁধা বিপত্তি, ষড়যন্ত্র ও নানামুখী জটিলতা কাটিয়ে অবশেষে গেল শুক্রবার (২৭ জুলাই) সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান খ্যাত নায়ক শাকিব খান অভিনীত কলকাতার ছবি ‘ভাইজান এলো রে’। ছবিটি মুক্তি পাবার পর প্রতিটি প্রেক্ষাগৃহে শো গুলো ছিল সব হাউস ফুল। ঢাকায় বৃষ্টি থাকা সত্ত্বেও তা উপেক্ষা করে ছাতা মাথায় দিয়ে প্রেক্ষাগৃহে  গিয়ে তাঁদের প্রিয় নায়ক শাকিব খানের সিনেমা দেখেছে তাঁর ভক্তরা ! যে দৃশ্য কিনা দেখা যায়নি বাংলাদেশে বহু বছর ধরে।

ছবিটি মুক্তির পর বিভিন্ন হল মালিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদের পর প্রথম কোন  একটি ছবি এমন হাউস ফুল যাচ্ছে, বিশেষ করে প্রতিটি শো-ই।অনেক দর্শকই একবার দেখে ক্ষান্ত হয় নি বরং একাধিকবার এসেছেন এই ছবিটি দেখা’র জন্য। তাও আবার চড়া মুল্যে টিকিট কিনে ! এ যেন ভালোলাগার, ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ। আবার কেন জানি মনে হয় এ যেন এক নতুন উৎসব। যে উৎসবের নাম হতে পারে “শাকিব উৎসব”। কেননা এই প্রজন্মের সিনেমাপ্রেমিক  প্রতিটি মানুষের  মধ্যেই যেন শাকিব মানে আনন্দ, বিনোদন, ভালোলাগা, ভালোবাসা, সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, অপেক্ষা, একাত্নতার এক মহামিলন।

সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে অনেকেই টিকিট না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন। আবার অনেকেই তাদের প্রিয় নায়কের ছবিটি দেখার জন্য ব্ল্যাকে ডাবল দামে টিকিট কেটে দেখেছেন। মধুমিতা হলে সিনেমা দেখতে আসা দর্শকরা ১৫০ টাকার টিকেট ৩০০ টাকা আর ১০০ টাকার টিকেট ২০০ টাকায় কিনছেন। কিছুতেই যেন তাদের বিরক্তি নেই। এদিকে, ছবিটি মুক্তির পর শাকিব খানের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘দর্শক ভালো ছবি দেখতে চায়। আর ভালো চলচ্চিত্রের জন্য কোনো উৎসব লাগে না। বরং একটি ভালো ছবি নিজেই উৎসব তৈরি করে। আমি দর্শকদের ধন্যবাদ দিতে চাই, তারা এই বৃষ্টি উপেক্ষা করে সিনেমা হলে আসছেন এবং ছবি দেখছেন।’

জয়দীপ মুখার্জি পরিচালিত ‘ভাইজান এলো রে’ প্রযোজনা করেছে এসকে মুভিজ। আমদানি চুক্তিতে বাংলাদেশে ছবিটি মুক্তি দিচ্ছে এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স। ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ,পায়েল সরকার, দীপা খন্দকার, মনিরা মিঠু, শাহেদ আলী, রজতাভ দত্ত, বিশ্বনাথ বসু, শান্তিলাল মুখার্জি সহ আরও অনেকে।প্রসঙ্গত, গত ঈদুল ফিতরে বাংলাদেশে সিনেমাটি মুক্তি দেয়ার কথা থাকলেও উৎসবে বাংলাদেশে বিদেশি সিনেমা মুক্তি দেয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে আদালত। যার কারণে গত ঈদুল ফিতরে বাংলাদেশে সিনেমাটি মুক্তি দিতে পারেনি সিনেমা সংশ্লিষ্টরা। এরপর গত ২০ জুলাই বাংলাদেশে সিনেমাটি মুক্তির তারিখ ঘোষণা দেয়া হলেও, কিন্তু সেই তারিখেও মুক্তি দেয়া সম্ভব হয় নি এই ছবিটি। শেষ পর্যন্ত নানামুখী জটিলতার পর গেল শুক্রবার (২৭ জুলাই) সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে ‘ভাইজান এলো রে’ সিনেমাটি।
You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.