ভালো আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়! জ্বর নেই, রক্তচাপ-খাওয়াদাওয়া স্বাভাবিক


হাইলাইটস

  • ভালো আছেন প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।
  • তাঁর কোভিড আক্রান্ত হওয়ার খবরে উদ্বেগ তৈরি হয়েছিল সিনেপ্রেমীদের মধ্যে।
  • তবে তিনি যে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি বুধবার তারা জানিয়েছে, বর্ষীয়ান অভিনেতার জ্বর আর নেই।
  • স্বাভাবিক খাওয়াদাওয়া করেছেন তিনি। রক্তচাপও স্বাভাবিক রয়েছে।

এই সময় বিনোদন ডেস্ক: ভালো আছেন প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তাঁর কোভিড আক্রান্ত হওয়ার খবরে উদ্বেগ তৈরি হয়েছিল সিনেপ্রেমীদের মধ্যে। তবে তিনি যে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি বুধবার তারা জানিয়েছে, বর্ষীয়ান অভিনেতার জ্বর আর নেই। স্বাভাবিক খাওয়াদাওয়া করেছেন তিনি। রক্তচাপও স্বাভাবিক রয়েছে।

মঙ্গলবার করোনা-আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তাঁকে মিন্টো পার্ক লাগোয়া একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সৌমিত্রর বয়স এখন ৮৫ বছর। বয়স ও ক্যান্সার-প্রেশার-সুগার-সিওপিডি-র মতো গুচ্ছ কো-মর্বিডিটির কারণে তাঁকে ক্রিটিক্যাল কেয়ারের সুবিধেযুক্ত একটি কেবিনে রাখা হয়েছে। ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ অরিন্দম করের নেতৃত্বে তিন সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড তাঁর চিকিৎসা করছে। তবে মঙ্গলবারই সন্ধ্যায় চিকিৎসকরা জানান, ভালোই আছেন সত্যজিতের অপু। জ্বর নেই, এক্স-রে রিপোর্টেও মেলেনি ফুসফুসে সংক্রমণের কোনও চিহ্ন। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রাও স্বাভাবিক। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে এ দিন টুইট করেন।

মুখ্যমন্ত্রী তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলে লেখেন, ‘প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কোভিড-নাইনটিন পজিটিভ হয়েছেন জেনে আমি চিন্তিত। তাঁর দ্রুত আরোগ্য ও সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।’

BREAKING: করোনায় আক্রান্ত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ভর্তি হাসপাতালে

ঝুঁকি না-নিয়ে সৌমিত্রকে আপাতত ক্রিটিক্যাল কেয়ারেই রাখা হবে বলে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে। শ্বাস-প্রশ্বাস সংক্রান্ত কোনও সমস্যা না-থাকায় ও রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা স্বাভাবিক থাকায় সৌমিত্রর অক্সিজেন সাপোর্ট লাগছে না। হাসপাতালের সিইও প্রদীপ ট্যান্ডন জানান, সোমবার সন্ধ্যাতেই বর্ষীয়ান অভিনেতার ভর্তি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি মঙ্গলবার বেলা ১১টা নাগাদ ভর্তি হন।

‘প্রথম ফেলুদা’র পরিবার সূত্রের খবর, কয়েক দিন ধরেই তাঁর শরীর ভালো যাচ্ছিল না। গত শনিবার থেকে জ্বর ছিল। সৌমিত্রর মেয়ে পৌলমী জানান, উপসর্গ দেখেই কোভিড টেস্ট করানো হয়। সোমবার তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কয়েক মাস আগেও একবার ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে তিনি ইএম বাইপাস লাগোয়া একটি বেসরকারি হাসপাতালে বেশ কিছু দিন ভর্তি ছিলেন। তাই, বয়স ও কো-মর্বিডিটির ঝুঁকি এড়াতে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভর্তির সময়েও সৌমিত্রর রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ছিল ৯৭ শতাংশ, যা একেবারেই স্বাভাবিক। তবে আজ, বুধবার তাঁর আরও কয়েকটি শারীরিক পরীক্ষা করানো হবে।

টলিউড সূত্রের খবর, গত ৩০ সেপ্টেম্বর সৌমিত্র একটি ডকু-ফিুচারের জন্য শুটিং করেন ভারতলক্ষ্মী স্টুডিয়োয়। সে দিন বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ শুটিং শুরু হয়। দুপুর পৌনে ১টা নাগাদ ডকু-ফিচার ইউনিটের এক জনকে সৌমিত্র জানান, একটু তাড়াতাড়ি করলে ভালো হয়, তাঁর শরীরটা খারাপ লাগছে। সেই হিসেবে ৩০ সেপ্টেম্বর ছিল সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের করোনা-উপসর্গ ধরা পড়ার প্রথম দিন। চিকিৎসকদের অনেকেরই মতে, এ ক্ষেত্রে ওই দিন যাঁরা প্রবীণ অভিনেতার সংস্পর্শে এসেছিলেন, তাঁদের সবার ১৪ দিনের সেল্ফ আইসোলেশনে থাকা ও করোনা পরীক্ষা করানো উচিত। ওই ডকু-ফিচার ইউনিটে ছিলেন ২৫-৩০ জন। ভারতলক্ষ্মী স্টুডিয়োয় সে দিন লাঞ্চ ব্রেকের পর সৌমিত্রর ইন্টারভিউ নেন পর পর পাঁচ জন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন সন্দীপ রায়, সব্যসাচী চক্রবর্তী ও পরিচালক অতনু ঘোষ। বাকি দু’জন সাংবাদিক। সন্দীপ রায় কিছু দিন আগে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠেন। ১ অক্টোবর থেকে সৌমিত্র বাড়িতেই ছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

অন্য বহু প্রবীণ অভিনেতা করোনাকালে বাইরে না-বেরোলেও সৌমিত্র ৮ জুলাই থেকেই লাগাতার শুটিং করছেন। জুলাইয়ের মাঝামাঝি তিনি যখন ‘বায়োপিক’-এর শুটিং করছিলেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে প্রশ্ন করা হয়, প্রবীণরা যেখানে ভয়ে গুটিয়ে যাচ্ছেন, সেখানে শুটিংয়ে এসে ভয় করছে না? থমথমে গলায় সৌমিত্রর উত্তর ছিল, ‘কে বলল, আমি ভয় পাচ্ছি না? চারপাশে এমন ভয়ের আবহাওয়া। বাইরে বেরিয়ে শুটিং করতে হলে ভয় লাগবেই। কিন্তু এই ছবিটা আমাকে ঘিরে। আমার তিন দিনের কাজ বাকি আছে। সেটা করে দিয়ে আমি দায়িত্বমুক্ত হতে চাই’।

অমিতাভ বচ্চনের করোনা হয়েছে, তা শোনার পর এটা মনে হয়নি যে, ক’টা দিন অপেক্ষার পর শুটিং শুরু হলে ভালো? সৌমিত্রর জবাব ছিল, ‘আসলে শুটিং না-করে বসে থাকার অবস্থা সকলের থাকে না। শুটিং না-করলে ভাত-ডাল জুটবে কী করে?’

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.