মেয়েরা পাত্তা দেয় না ? নিজেকে হ্যান্ডসাম করুন এই সহজ ১০টি উপায় দিয়ে

নারীর রূপচর্চা নিয়ে কত কথাই না বলা হয়, কিন্তু পুরুষের সাজপোশাক? কত ফ্যাশন, কত বাহারি সাজগোজ, কত রকমের ট্রেন্ড নিয়ে চলে আলোচনা। কিন্তু পুরুষের সাজপোশাক এখনও ততটা আলোচ্য বিষয় নয়। তবে পুরুষেরও প্রয়োজন আরও আকর্ষনীয় হয়ে ওঠার।

কীভাবে হয়ে উঠবেন হ্যান্ডসাম তারই কিছু টিপস-

১. শেভ – দাড়ি রাখা জেন ওয়াই এর নতুন ফ্যাশন স্টেটমেন্ট। কিন্তু তাই বলে সেই দাড়ি বেড়ে মাটিতে ঠেকে যাওয়ার ব্যাপারটি কিন্তু মোটেই কাম্য নয়। তাই শেভ করুন সঠিকভাবে। দাড়ি রাখতে চাইলে তাকে ট্রিম করুন। এতে আপনার ফ্যাশন সচেতনতা এবং পরিচ্ছন্নতা উভয়ই বজায় থাকবে।

২. দাঁত পরিষ্কার – নিয়মিত দাঁত মাজুন এবং যারা সিগারেট বা তামাক জাতীয় পদার্থ ব্যবহার করেন তারা দু’মাস অন্তর ডেন্টিস্টের কাছে যান এবং দাঁতের পরিচর্যার ব্যাপারে খেয়াল রাখুন। মনে রাখবেন সুন্দর হাসি পুরুষ ও নারী উভয়ের সৌন্দর্যই বাড়ায়।

৩. নখ পরিষ্কার – নিয়মিত হাত এবং পা এর যত্ন নিন। হাত ও পা পরিষ্কার রাখুন। নখে যাতে ময়লা না জমে থাকে, সেই বিষয়ে লক্ষ্য রাখুন। মনে রাখবেন, অগোছালো ভাব অনেকেই আকর্ষনীয় মনে করেন কিন্তু অপরিচ্ছন্নতা নয়।

৪. পাকা চুল ও কাঁচা মন – চুলে পাক ধরছে? আর সেই চিন্তায় রাতের ঘুম উড়ে গেছে? ভাবছেন চুল রং করবেন? বার্গেন্ডি কিংবা কাক-কালো? এমন যদি অবস্থা হয়ে থাকে তবে চুল রং করার ভাবনাটি সবার আগে পরিত্যাগ করুন। পাকাচুল কিংবা ‘গ্রে হেয়ার’ কিন্তু বর্তমান যুগের সবচেয়ে ট্রেন্ডি ফ্যাশন। বার্ধক্য কিংবা বয়স বেড়ে যাওয়াকে তাই লুকিয়ে না রেখে আপন করে নিন। মনে রাখবেন পরিণতমনস্ক পুরুষদের মহিলারা বেশি পছন্দ করেন। আর তাই ‘গ্রে-হেয়ার’ ম্যানও মহিলাদের চোখে একটু বেশিই হ্যান্ডসাম।

৫. ফেসিয়াল – আকর্ষনীয় হয়ে ওঠার জন্য ত্বকের যত্ন নেওয়া খুব জরুরি। তাই নিয়মিত ফেসিয়াল করান। সময়ের খুব অভাব হলেও মাসে একবার ফেসিয়াল করিয়ে নিন। ত্বকের সতেজতা বজায় রাখতে এটি খুবই জরুরি।

৬. ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার – রুক্ষতা পুরুষের গয়না, রাফ মানেই হ্যান্ডসাম- এসব বলার দিন চলে গেছে। রুক্ষতা এখন আর পুরুষের ফ্যাশন স্টেটমেন্ট নেই। তাই অ্যাটিটিউড হোক বা ত্বক কোনও কিছুতেই রুক্ষতা রাখার প্রয়োজন নেই। তাই শেভ করার পর অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

৭. সানস্ক্রিম ব্যবহার – ট্যান পড়া নিয়ে তো মেয়েরা ভয় পায় আর ছেলেরা বাদামীই ‘হট’ – এমন ভাবনা বয়ে বেড়ানোর দিন শেষ। রোদে ঘুরে মুখময় ট্যান নিয়ে ঘুরে বেড়ানো কোনোভাবেই কেতাদুরস্ত নয়। তাই রাস্তায় বের হলে অবশ্যই সানস্ক্রিম ব্যবহার করুন।

৮. ভালো পারফিউম ব্যবহার – মনে রাখবেন বেশিরভাগ পুরুষেরই ঘেমে যাওয়ার প্রবণতা থাকে। অল্পেতেই ঘেমে যাওয়া ব্যাপারটির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া ছাড়া বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অন্য কোনও উপায় থাকে না। কিন্তু ঘামের সঙ্গে যে ভয়ানক দুর্গন্ধ হয় তা বয়ে নিয়ে বেড়ানোর ইচ্ছেটা মোটেই ভালো না। তাই ভালো পারফিউম ব্যবহার করুন এবং দুর্গন্ধমুক্ত থাকার চেষ্টা করুন।

৯. আধুনিক ফ্যাশন – পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে সচেতন থাকুন। যে পোশাক আপনাকে মানায়, তেমন পোশাকই পরুন। মনে রাখবেন সঠিক পোশাক আপনার ব্যক্তিত্বর প্রকাশ ঘটায়।

১০. মুখ পরিস্কার রাখুন – দিনে একবার ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোবেন। এতে মুখের তৈলাক্ত ভাব দূর হয়।

ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্য ছেলেদের সহযোগিতা করুন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.