|

লঞ্চের অগ্রিম টিকিট ২৯ মে থেকে

এবার ঈদে ঘরমুখো নৌ-যাত্রীদের লঞ্চের কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং ১২ রমজান (২৯ মে) থেকে শুরু হচ্ছে। টিকিট পাওয়া যাবে ১৮ থেকে ২০ রমজান পর্যন্ত।

আর বিআইডব্লিউটিসির স্টিমারের টিকিট বুকিং শুরু হতে পারে ১৫ রমজান থেকে। বিগত যে কোনো সময়ের চেয়ে এবার ঈদে ঢাকা-বরিশাল রুটে বিলাসবহুল লঞ্চের সংখ্যা বেশি থাকবে বলে জানিয়েছেন লঞ্চ মালিকরা।

কম ভাড়া ও আরামদায়কসহ নানা কারণে নদ-নদী বেষ্টিত বরিশাল বিভাগের বেশিরভাগ মানুষের যাতায়াত নৌ-পথেই। ঢাকা-বরিশাল নৌ-পথে লঞ্চের কেবিনের টিকিট সাধারণ সময়েই অনেকটা সোনার হরিণ।

ঈদে বাড়তি চাপ থাকায় লঞ্চের অগ্রিম কেবিন বুকিং এ আগ্রহ থাকে যাত্রীদেরও সবচেয়ে বেশি। তাদের কথা মাথায় রেখে এবার ১২ রমজান থেকে লঞ্চের কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং শুরু হবে বলে জানিয়েছেন এমভি কীর্তনখোলার মালিক মঞ্জুরুল আহসান ফেরদৌস।

তিনি বলেন, কেবিনের টিকিট যেন কালোবাজারিদের হাতে না যায় সেজন্য আমরা সজাগ রয়েছি। আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে কেবিনের টিকিট বিক্রি করা হবে।

লঞ্চ মালিক সমিতি জানায়, ২০ রমজানের মধ্যে কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং শেষ হবে বলে জানিয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ লঞ্চ মালিক সমিতি সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, এবার লঞ্চের সংখ্যা অনেক বেশি এবং আকারও বড়। আমি মনে করি না এবার কোনো সমস্যা হবে।

এদিকে, স্টিমারের কেবিন বুকিং ১৫ রোজা থেকে শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিআইডব্লিউটিসি’র সহ-মহাব্যবস্থপক সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ।

তিনি বলেন, স্টিমারের অগ্রিম টিকিট ১৫ রোজা থেকে বিক্রি শুরু হতে পারে। এই টিকিট শুধু ঢাকায় পাওয়া যাবে। এজন্য বিআইডব্লিউটিসি’র প্রধান কার্যালয়ের রিজার্ভেশন শাখায় যোগাযোগ করতে হবে।

লঞ্চগুলোতে শুধু কেবিনের টিকিট অগ্রিম বুকিং করা যায়। তৃতীয় শ্রেণির টিকিট ভ্রমণের দিন লঞ্চে দেওয়া হয়। এবার ঈদে ঢাকা-বরিশাল রুটে মোট ২২টি লঞ্চ ও ৬টি স্টিমার চলার কথা রয়েছে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.