‘সারা আর আমি একসঙ্গেই ‘ডুবিস’ রোল করতাম’,NCB কে নিজেই জানিয়েছেন রিয়া!


নিজস্ব প্রতিবেদন- বছর ঘুরলেও এখনও সুশান্ত কাণ্ডের সুরাহা হয় নি। সুশান্তে মৃত্যুর তদন্ত চলতে চলতেই সামনে এসেছে বলিউডের মাদক চক্র। তদন্ত চলাকালীন রিয়ার পাশাপাশি একের পর এক বলিউড তারকাদের তলব করা হয়। সারা আলি খানকেও (Sara Ali Khan) ডেকে পাঠায় এনসিবি। সারা সেই জিজ্ঞাসাবাদে জানান তিনি কোনও কোনও সময় ধূমপান করলেও মাদক বা গাঁজা জাতীয় কিছু গ্রহণ করেননি কোনওদিন। যদিও রিয়ার (Rhea Chakraborty) বয়ানে উঠে এসেছে অন্য তথ্য।

আরও পড়ুন: ওয়ার্ক আউটে শাহিদ-মীরা, ছবিতে ‘কাবাব মে হাড্ডি’ হলেন ইশান খট্টর

আর কয়েকদিন পরই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু বার্ষিকী, ঠিক তার কয়েকদিন আগে এনসিবি কাছে দেওয়া রিয়ার বয়ান সকলের সামনে এল। সুশান্তের সঙ্গে সারার সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসার পর থেকে জল্পনা শুরু হয় বিভিন্ন মহলে। সারার ডেবিউ ছবি ‘কেদারনাথ’ শুটিংয়ের পর থেকেই সুশান্তের সঙ্গে গাঢ় বন্ধুত্ব হয় সারার। দুজনে থাইল্যান্ডে বেড়াতেও গিয়েছিলেন, উঠে আসে এমনই তথ্য। এনসিবির কাছে সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্কের কথা স্বীকার করে নেন সারা। সঙ্গে ট্রিপের কথাও জানিয়েছিলেন জেরায়। সেইসময় রিয়ার বয়ানে সারার বিরুদ্ধে উঠে আসে বিস্ফোরক অভিযোগ। রিয়ার বিরুদ্ধে এনসিবির যে চার্জশিট পেশ করেছিল তাতেই উঠে আসে এই তথ্য। 

সুশান্তকাণ্ডে গ্রেফতার হয়ে বেশকিছুদিন  বাইকুল্লা জেলেও কাটিয়েছিলে রিয়া। সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের হাতে আসা ওই চার্জশিটের কপি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানেই রিয়া জানিয়েছেন অভিনেত্রী সারা আলি খান হাতে করে ডুবি বানাতেন, রিয়াও যা তাঁর কাছে থেকে নিয়েছেন। টানও দিয়েছেন, চার্জিশিটে দাবি রিয়ার। গাঁজাকেই ডুবি বলেছেন রিয়া, চার্জশিটেই নিজেই জানান তিনি।

চার্জশিটে রিয়া লেখেন, ‘২০১৭ সালের ৬ জুন আমার সঙ্গে সারার মাদক সংক্রান্ত কথোপকথন হয়েছিল, যেখানে আমার বাড়িতে সারার অ্যালকোহল এবং মারিজুয়ানা নিয়ে কথা হয়। তবে আমি ওইদিন ওর থেকে কিছু নিইনি। দুঃখ মেটানোর জন্য সারা আমায় মাদক নেওয়ার কথা বলে।’  রিয়া এও জানান সারা নাকি মন খারাপে আইসক্রিম খেত, সঙ্গে থাকত মারিজুয়ানাও। তাঁকে পরখ করে দেখতে বললে তা কখনও করা হয়ে ওঠে নি রিয়ার।





Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.