|

হেলিকপ্টার হুজুরকে দেখতে মানুষের ঢল

কুয়াকাটা থেকে হেলিকপ্টারে চড়ে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার একটি ওয়াজ-মাহফিলে যোগ দিতে আসলেন অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা মাওলানা মো. হাফিজুর রহমান সিদ্দিক (কুয়াকাটা)।

মাওলানা মো. হাফিজুর রহমান সিদ্দিক হেলিকপ্টার হুজুর নামে সবার কাছে পরিচিত। ধোবাউড়া উপজেলায় হেলিকপ্টারে চড়ে হুজুরের আগমন দেখতে হাজার হাজার উৎসুক মানুষের ঢল নামে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় হেলিকপ্টারে চড়ে মাও. হাফিজুর রহমান সিদ্দিক ওয়াজ-মাহফিল অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন। এর আগে হেলিকপ্টার হুজুর নামে পরিচিত এই হুজুরকে দেখতে সকাল থেকেই গোস্তাবহলী ওয়াজ মাহফিলে দূরদূরান্ত থেকে উৎসুক জনতা অপেক্ষা করতে থাকেন। উৎসুক জনতাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা মাওলানা মো. হাফিজুর রহমান সিদ্দিককে কোনো ওয়াজ-মাহফিলে আসার আগে ৫০ হাজার টাকা বায়না দিতে হয়। সেই সঙ্গে যেখানে ওয়াজ করতে যাবেন সেখানে যাওয়ার জন্য তার হেলিকপ্টার ভাড়া ওয়াজ-মাহফিল আয়োজকদের পরিশোধ করতে হয়। এ নিয়ে গত বছর নভেম্বর মাসে পাবনার চাটমোহরে হেলিকপ্টারে চড়ে জলসা করতে এসে চুক্তি অনুযায়ী ওয়াজ না করায় আয়োজক ও মুসল্লিদের জনরোষের শিকার হন মাওলানা মো. হাফিজুর রহমান সিদ্দিক।

একপর্যায়ে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে তাকে ছাড়াই ওই দিন হেলিকপ্টারটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে চলে যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে হাফিজুর রহমান সিদ্দিককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাকে নিরাপদে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.