৫০-এ পা গৌরী খানের… বহু বাধা পেরিয়ে কিং খানের জীবনসঙ্গী হয়েছিলেন তিনি!


এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ৫০ বছরে পা দিলেন গৌরী খান (Gauri Khan)। না, তিনি স্বামীর পরিচয়ে আজ পরিচিত নন। তৈরি করেছেন নিজের স্বতন্ত্র পরিচয়, গড়ে তুলেছেন এক অন্য দুনিয়া। কিন্তু শাহরুখ (Shah Rukh Khan) এবং গৌরীর জীবনের শুরুটা ছিল যেন পুরো সিনেমার চিত্রনাট্য।

সাংবাদিক অনুপমা চোপড়ার (Anupama Chopra) লেখা বই King of Bollywood: Shah Rukh Khan and the Seductive World of Indian Cinema-এ তিনি বিস্তারিতভাবে শাহরুখ ভক্ত ও অগুনতি পাঠককে জানিয়েছেন গৌরী খানকে বিয়ে করার জন্যে কী কী পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হয়েছিল কিং খানকে। বিয়ের সময়ে বিনোদন জগতে যথেষ্ট পরিচিত নাম ও মুখ ছিলেন শাহরুখ খান। বিশেষ করে তাঁর টেলি সিরিয়াল Fauji তাঁকে রাতারাতি মানুষের ঘরের ছেলে করে তুলেছিল।

কিন্তু গৌরী খানের বাবা রমেশ ছিব্বা-র বিস্তর আপত্তি ছিল শাহরুখ খানের ফিল্মি কেরিয়ার নিয়ে। ধর্ম সেখানে কোনও বাধা ছিল না। তবে রমেশ ছিব্বা কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না তাঁর মেয়ে কোনও অভিনেতাকে বিয়ে করবে। একটা সময়ে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জাকির হুসেনের সঙ্গে কাজ করেছিলেন গৌরীর বাবা। সেই সময়ে ফিল্ম স্টারদের খুব কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতাও হয়েছে তাঁর। সেই অভিজ্ঞতাই তাঁকে ভাবতে শিখিয়েছিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ভিতরটা খুবই অন্ধকার। তাই আদরের মেয়েকে সেই অন্ধকারে ঠেলে দিতে চাননি তিনি।

অন্যদিকে গৌরী খানের মা সবিতা ছিব্বা শাহরুখ খানকে পর্দায় দেখতে পছন্দ করলেও জামাই হিসেবে একেবারেই মেনে নিতে পারেননি। মেয়েকে শাহরুখের প্রভাব থেকে বের করে আনার জন্যে নাকি তিনি জ্যোতিষের পরামর্শও নিয়েছিলেন। টানটান চিত্রনাট্যের এখানেই শেষ নয়। পুরো অ্যাকশন প্যাকড প্রেম কাহিনিতে এই বিয়ের বিরুদ্ধে ছিলেন গৌরীর দাদা বিক্রান্তও। বইয়ে লেখা হয়েছে, ‘সেই সময়ে বিক্রান্তের গুন্ডা হিসেবে পরিচিতি ছিল। উনি শাহরুখ খানকে রিভলভার নিয়েও ভয় দেখিয়েছিলেন। বোনের জীবন থেকে সরে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও নিজের লক্ষ্য থেকে টলানো যায়নি শাহরুখকে।’

আরও পড়ুন: মন্নতে গৌরীর ওয়র্ক স্টেশনের এক ঝলক মুগ্ধ করবে…
অবশেষে পরিবারের মত নিয়ে ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন শাহরুখ-গৌরী। প্রায় ৩০ বছরের দাম্পত্যে খান দম্পতি তিন সন্তানের মা-বাবা। তবে সংসার অথবা স্বামীর খ্যাতির আলোয় হারিয়ে যাননি গৌরী। প্রতিষ্টা করেছেন তাঁর ইন্টিরিয়র ডিজাইনের ব্যবসা। শুরু করেছেন Gauri Khan Designs। বর্তমানে তিনি লেখালেখির কাজে ব্যস্ত। পরিকল্পনা চলছে তাঁর লেখা কফি টেবল বুক My Life in Design-এর। আগামী বছরই মুক্তি পাওয়ার কথা এই বইয়ের। ইন্টিরিয়র ডিজাইনার হিসেবে তাঁর চলার পথের হদিশ থাকবে এই বইয়ে। থাকবে তাঁর বিভিন্ন প্রজেক্ট, পরিবার এবং মন্নত-এর না দেখা বেশ কিছু ছবিও।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.