বাড়িতে যে পাঁচ আর্থিক নথি রাখা জরুরি! জেনে নিন

0 6


হাইলাইটস

  • বিমার বিষয়ে নিজের পরিবারকে অবহিত করুন।
  • পরিবারের কাছ থেকে চেকবই পাশবই সম্পর্কিত কোনও তথ্য লোকাবেন না।
  • আপনার বিনিয়োগ তালিকার হিসাব থাকুক পরিবারের কাছে।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক : আর্থিক নথিপত্রের রেকর্ডগুলি ঠিক মতো রক্ষণাবেক্ষণ করে রাখলে তা শুধু জীবদ্দশায় আমাদের সহায়তা করে এমন নয়, এই ব্যবস্থা আমাদের আইনি উত্তরাধিকারীদেরও পরবর্তী কালে সাহায্য করে যখন তারা আমাদের ফেলে আসা সম্পদগুলিগুলিকে ঠিকমতো সাজিয়ে গুছিয়ে নিতে বসে । আপনার গুরুত্বপূর্ণ আর্থিক এবং ব্যক্তিগত বিবরণের একটি তালিকা তৈরি করুন, তারপরে সেগুলি ফাইল করুন এবং একটি নিরাপদ স্থানে সেগুলি রাখুন। এজন্য এক্ষেত্রে সেই সব নথির একটি তালিকা করে নিন যা আপনাকে আপনার সম্পদ আপনারই উত্তরাধিকারীদের কাছে সহজে পৌঁছে যেতে সাহায্য করবে। একটা কথা সব সময় মাথায় রাখা উচিত , এমন কোনও কাজ করে যাবেন না, যার জন্য আপনার অসুস্থতার সময় অথবা আপনার অবর্তমানে আপনার উত্তরাধিকারীরা অসুবিধায় পড়ে ৷ ফলে সেই সব কথা মাথায় রেখে ব্যবস্থা করে যাওয়াই বাঞ্জনীয়৷

১) বিমা পলিসি

এক্ষেত্রে প্রথমে আপনার কাছে থাকা সমস্ত বিমা পলিসির একটি তালিকা বানিয়ে রাখুন। এর মধ্যে স্বাস্থ্য, জীবন, যানবাহন, ব্যক্তিগত এবং অন্যান্য যা সব বিমা পলিসি রয়েছে তা অন্তর্ভুক্ত থাকবে। এই সবগুলিকে হাতের কাছে এমন এক জায়গায় রেখে দেওয়া দরকার যাতে প্রয়োজনে পরিবারের লোকেরা তা পেতে পারে। তাছাড়া আপনি যদি এজেন্টদের মাধ্যমে এই পলিসিগুলি কিনে থাকেন, তাহলে আপনার সেই সব এজেন্টদের ফোন নম্বরও রেখে দিন সেখানে যাতে প্রয়োজনে সহজে তাদের সঙ্গে উত্তরাধিকারীরা যোগাযোগ করতে পারে।

২) চেক বই, পাশ বই সহ ব্যাংকের বিবরণ

চেক বই, পাশ বই সহ ব্যাংক সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পরিবারের লোকজনকে জানিয়ে রাখা দরকার ৷ এমনকি যদি আপনি আপনার চেক বইটি একবার ব্যবহার নাও করেন তবুও সেটি এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ নথি। যদি আপনার বৈধ উত্তরাধিকারীরা আপনার কয়েকটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করতে চান, তখন তারা যদি পুরনো চেক বই এবং ডেবিট কার্ড ইত্যাদি সারেন্ডার করতে পারে তাহলে এক্ষেত্রে কাজে সুবিধা হয়। আপনার সমস্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বরের একটি তালিকা হাতের কাছে রাখুন এবং নিশ্চিত করুন যে আপনি সেগুলি কোথায় রেখেছেন তা যেন আপনার পরিবারের সদস্যরা জানেন।

হেলথ ইন্স্যুরেন্স এর রিইমবারসমেন্ট কী ভাবে পাবেন? সহজে জানুন…
৩) ব্যাংকের লকার
অনেকেই তাদের গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট এবং গয়না সংরক্ষণের জন্য ব্যাংকের লকার ব্যবহার করে থাকেন। তবে অনেকেই তাদের জীবদ্দশায় তাদের পরিবারকে এর অস্তিত্ব সম্পর্কে অবহিত করতে পছন্দ করেন না। সেটা নয় ঠিক আছে, কিন্তু এটি অবশ্যই এমন ভাবে নোট করা থাকে যাতে পরবর্তীকালে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির চলে যাওয়ার পরে এটি অবশ্যই পরিবারের লোক পেতে পারে ৷ কারণ মনে রাখবেন পরিবারকে এই সব তথ্য জানালেন না আর আপনার মৃত্যুর পর সেটার হদিশ তারা পেল না বলে আর্থিক কষ্টে পড়ল সেটা তো একেবারেই কাম্য নয় নিশ্চয়৷

৪) বিনিয়োগের তালিকা
এজন্য আপনার বিনিয়োগের বিশদ বিবরণ সহ একটি এক্সেল শীট বজায় রাখুন, অথবা আপনার একত্রীকৃত অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট বা ডিম্যাট স্টেটমেন্টগুলির প্রকৃত রেকর্ড রাখুন। এই ভাবে বুক-কিপিং করা থাকলে নিশ্চিত করে যে আপনার সম্পদের বিতরণ ঠিকমতো কার্যকর হবে এবং একটি পয়সাও গলে যাবে না।

৫) সম্পত্তির রেকর্ড
দীর্ঘদিন উপেক্ষা করা হলে সম্পত্তি বেদখল বা তা নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সঠিক ঠিকানা এবং বাড়ি কেনার চুক্তির নথিগুলি হাতের কাছে রাখুন। এছাড়াও কোনও সমবায় সমিতির অধীনে বাড়ি হলে তখন ওই সমবায়ে আপনার অ্যাপার্টমেন্টের আসল শেয়ার সার্টিফিকেটটি যেন হাতের কাছে রাখবেন। যদি এটি জমির একটি প্লট হয়, তাহলে আপনার প্রপার্টি কার্ডের একটি রেকর্ড প্রয়োজন। মিউচুয়াল ফান্ড বা ডিপোজিটরি বা ব্যাংক পাসবুক থেকে ডুপ্লিকেট কপি বা সাধারণ অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট পাওয়া সহজ। মনে রাখবেন একটি বাড়ি ক্রেতা চুক্তির ডুপ্লিকেট কপি বের করা একটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার এবং বেশ ঝামেলার কাজ।

Read More : করোনার কারণে বদলেছে বিমা? জানা থাক আপনারও



Source link

Leave A Reply

Your email address will not be published.