এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার প্রস্তুতি মুমিনুল-শান্তদের

0 3


এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার প্রস্তুতি মুমিনুল-শান্তদের

এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার প্রস্তুতি মুমিনুল-শান্তদের

জুলাইতে জিম্বাবুয়ে সফরে এক ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলে দেশে ফিরেছিলেন মুমিনুল হকরা। এরপর সতীর্থরা কুড়ি ওভারের ক্রিকেট নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করলেও টেস্টের দলের মুমিনুল-শান্তরা ঘরে বসেই দিন কাটিয়েছেন। কেউ কেউ হয়তো ব্যক্তিগত উদ্যগে অনুশীলন করেছেন। আর এখন দীর্ঘ বিরতির পর মাঠে নামার সুযোগ হচ্ছে মুমিনুল-শান্তদের।

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে হাই পারফরম্যান্স ইউনিট (এইচপি) ও বাংলাদেশ ‘এ’ দলের চার দিনের ম্যাচ। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বিসিবির দুই দল দুটি চার দিনের ও তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলবে। ফলে মুমিনুল-শান্ত-সাইফ-সাদমানরা দীর্ঘদিন পর মাঠে নামার সুযোগ পাচ্ছেন। এমন সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত শান্ত।

বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় শান্ত বলেছেন, ‘আমরা যারা সবসময় টেস্ট দলে খেলি, যারা সাদা বলে কম খেলি, তারা আবার একত্র হয়েছি। একটা সিরিজ খেলার সুযোগ তৈরি হয়েছে। আমাদের সবার জন্য ভালো সুযোগ। একটা লম্বা সময় বিরতি ছিল আমাদের। আমাদের ম্যাচের ভেতরে আসা জরুরি ছিল। সাধারণত আমরা টেস্ট ম্যাচ অনেকদিন পরপর খেলি। একমাস বা ১৫ দিন পরপর খেলি তাও না। লম্বা সময় বিরতি থাকে। তাই ম্যাচ খেলা জরুরি ছিল।’

তরুণ ক্রিকেটারদের বিপক্ষে লড়াই হলেও শান্ত এই ম্যাচ দুটোকে প্রস্তুতি হিসেবে নিচ্ছেন। আগামী নভেম্বরে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্টের প্রস্তুতি নিতে ম্যাচ দুটি ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন তরুণ এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান, ‘পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ আছে নভেম্বরে। চট্টগ্রামেও ম্যাচ আছে। এখানে চার দিনের ম্যাচ খেলবো। সামনে যে টেস্ট ম্যাচ আছে, সেটা কাজে লাগবে। এতদিন সবাই যার যার বিভাগীয় শহরে ব্যক্তিগত ট্রেনিং করেছি। একসঙ্গে অনুশীলন করার সুযোগ ছিল না।’

সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘এখানে একসঙ্গে হয়ে অনুশীলন ও সিরিজ খেলতে পারছি, সেটা অবশ্যই ভালো। সামনে এনসিএল টুর্নামেন্টও আছে। এটাও ভালো প্রস্তুতির সুযোগ। এখানেও যদি ব্যাটসম্যানরা রান করে, বোলাররা উইকেট পায় তাহলে আত্মবিশ্বাস বাড়বে। ভালো করার সুযোগ বেশি হবে।’

বাংলাদেশ ‘এ’ দল: মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাইফ হাসান, সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, ইয়াসির আলী, মোহাম্মদ মিঠুন, ইরফান শুক্কুর, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, ইবাদত হোসেন, আবু জায়েদ রাহী, খালেদ আহমেদ, কামরুল ইসলাম রাব্বি, শহিদুল ইসলাম, ইমরুল কায়েস (শুধু একদিনের ম্যাচের জন্য)।

বাংলাদেশ এইচপি দল: তানজিদ হাসান তামিম, পারভেজ হোসেন ইমন, মুনিম শাহরিয়ার, শাহাদাত হোসেন, মাহমুদুল হাসান জয়, তৌহিদ হৃদয়, আনিসুল ইসলাম ইমন, ইমরান উজ জামান, আকবর আলী, মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি, রকিবুল হাসান, হাসান মুরাদ, তানভীর ইসলাম, রিশাদ হোসেন, শফিকুল ইসলাম, মুকিদুল ইসলাম, তানজিম হাসান সাকিব, মোহাম্মদ শাহিন আলম, সুমন খান, নোমান চৌধুরী, রেজাউর রহমান রাজা, রুয়েল মিয়া।





Source link

Leave A Reply

Your email address will not be published.