শাহজালাল বিমানবন্দরে বসছে আনোয়ার খান মর্ডাণ মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর

0 4


হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনাভাইরাসের আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগার বসাতে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ সাতটি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

বুধবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব সারওয়ার আলম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এতথ্য জানানো হয়। আগামী তিন থেকে ছয় দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানগুলো পরীক্ষাগার স্থাপন করবে।

চিঠিতে নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিমানবন্দরে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে স্ট্যান্ডার্ড অপারেশন প্রসিডিউরের (এসওপি) আলোকে পরীক্ষাগার স্থাপনের প্রয়োজনীয় স্থান বরাদ্দসহ আনুষঙ্গিক ব্যবস্থা নিতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করেছে মন্ত্রণালয়।

একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আইন ও বিধি-বিধান মেনে উপযুক্ত পরীক্ষাগার শুরুর নির্দেশ জারি করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ছাড়া অনুমোদন পাওয়া অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হলো: স্টেমজ হেলথ কেয়ার (বিডি) লিমিটেড, সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার, এএমজেড হাসপাতাল লিমিটেড, জয়নুল হক সিকদার ওমেন্স মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতাল, গুলশান ক্লিনিক লিমিটেড ও ডি এম এফ আর মলিকুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক।

মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে বলা হয়, বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগার বসাতে এসব প্রতিষ্ঠানের নাম প্রস্তাব করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। পরে প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুমোদন দেয় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়, আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চার দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে পরীক্ষাগার স্থাপন করবে। এখানে নমুনা পরীক্ষার খরচ নেবে ২ হাজার টাকা।

এছাড়া স্টেমজ হেলথ কেয়ার তিন দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে পরীক্ষাগার স্থাপন করবে। বিমানবন্দরে বহির্গামী যাত্রীরা এখানে দুই হাজার টাকায় করোনার নমুনা পরীক্ষা করতে পারবেন। সিএসবিএফ হেলথ সেন্টারের ল্যাব স্থাপনে সময় লাগবে পাঁচ দিন, নমুনা পরীক্ষার খরচ নিবে এক হাজার ৮৫০ টাকা।

এএমজেড হাসপাতাল পাঁচ দিনে পরীক্ষাগার স্থাপন করতে পারবে, নমুনা পরীক্ষায় খরচ নেবে এক হাজার ৮০০ টাকা। জয়নুল হক সিকদার ওমেন্স মেডিকেল কলেজ পরীক্ষাগার স্থাপন করতে ছয় দিন চেয়েছে এবং খরচ চেয়েছে ১ হাজার ৭০০ টাকা।

পাঁচ দিনে পরীক্ষাগার স্থাপন করতে পারবে গুলশান ক্লিনিক, যাদের নমুনা পরীক্ষার খরচ এক হাজার ৭৫০ টাকা। আর ডিএমএফআর পরীক্ষাগার স্থাপন করতে সময় চেয়েছে চার দিন, এখানে নমুনা পরীক্ষার খরচ দুই হাজার ৩০০ টাকা।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমআর/ওয়াইএ





Source link

Leave A Reply

Your email address will not be published.