Bigg Boss 14: ‘বলিউড মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতেও পছন্দের লোক-ক্যাম্প-লবির কারবার!’


হাইলাইটস

  • কঙ্গনা রানাওয়াত বরাবরই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নেপোটিজম অর্থাৎ স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলে এসেছেন।
  • সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরও ফের একবার সেই প্রশ্ন উস্কে দিয়েছেন তিনি।
  • কয়েক মাস আগে সোনু নিগম এ বিষয়ে নিজের ব্লগ ‘সোনুলাইভডি’-তে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করে নিজের মনের কথা শেয়ার করেছিলেন।

এই সময় বিনোদন ডেস্ক: বিগ বস ১৪-তে সদ্য প্রতিযোগী হয়ে অংশগ্রহণ করেছেন গায়ক রাহুল বৈদ্য। আর ঢুকেই বিস্ফোরক গায়ক। তাঁর দাবি, শুধুমাত্র শিল্পের পারদর্শিতা দিয়েই বলিউডে গায়ক হওয়া যায় না। ইন্ডিয়ান আইডল-এর প্রথম সিজনে রানার আপ হয়েছিলেন রাহুল বৈদ্য। তবে দর্শকের কাছে বেশ জনপ্রিয় তিনি। তেরা ইন্তেজার নামে একটি অ্যালবামও বের করেছিলেন তিনি। এমনকী রেস ২ ছবিতে বেইন্তেহান গানটির আনপ্লাগড ভার্সানটিও তাঁর গাওয়া।

কঙ্গনা রানাওয়াত বরাবরই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নেপোটিজম অর্থাৎ স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলে এসেছেন। সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরও ফের একবার সেই প্রশ্ন উস্কে দিয়েছেন তিনি। সেই সময় গানের ইন্ডাস্ট্রিতেও যে ফেভারিটজম বা পছন্দের লোককে কাজ দেওয়ার চল রয়েছে, ক্যাম্প রয়েছে তা প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছিলেন তারকা গায়ক সোনু নিগম। রাহুল বৈদ্যও ফের একবার সেই কথাই মনে করিয়ে দিলেন। রাহুলের কথায়, ‘বেশিরভাগ গায়ক কাজ পান মিউজিক ডিরেক্টরদের সঙ্গে সহকারী হিসেবে কাজ করার জন্য। অরিজিৎ সিং প্রীতমের হয়ে কাজ করেন, আরমান মালিকের ভাই মিউজিক ডিরেক্টর আমাল মালিক, জুবিন নওটিয়াল লেবেল টি-সিরিজের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ।’

রাহুলের দাবি, শুধুমাত্র ট্যালেন্ট বা শিল্পীর গুণ বিচার করেই বলিউড গান গাওয়ার সুযোগ দেয় না। সেখানে পছন্দের লোক, লবি, ক্যাম্পের সংস্কৃতি রয়েছে। কয়েক মাস আগে সোনু নিগম এ বিষয়ে নিজের ব্লগ ‘সোনুলাইভডি’-তে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করে নিজের মনের কথা শেয়ার করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘খুব শীঘ্রই এবার গানের জগত থেকে আত্মহত্যার খবর পাবেন আপনারা’। সোনুর বক্তব্য, গানের জগতেও যেভাবে নতুন গায়ক-গায়িকা-গান লেখক-মিউজিক শিল্পীদের পায়ের তলায় দমিয়ে রাখা হয় তা সত্যিই শোচনীয়। এখানেও বহু প্রভাবশালীরা প্রভাব খাটান একেবারে বলিউডের মতোই। আর সে কারণে অসংখ্য উঠতি সঙ্গীতশিল্পীদের ভবিষ্যৎ একেবারে শেষ হয়ে যাচ্ছে।

সোনুর কথায়, ‘অবাক লাগে, আমাকে এসে অনেক বাচ্চা বাচ্চা শিল্পীরা বলেন সোনু ভাইয়া এই চলছে, সোনু স্যার ওই চলছে। কী করব বুঝতে পারছি না। কাজের অভাব না, কাজ কেড়ে নেওয়া এবং নিজেদের পছন্দের লোকেদের দিয়ে কাজ করানোর ট্রেন্ড রয়েছে এই ইন্ডাস্ট্রিতেও। নতুনদের কথা কেউ ভাবেন না। পরিচালক-প্রযোজক-মিউজিক ডিরেক্টর রাজি হয়ে গেলেও মিউজিক কোম্পানিগুলো সরাসরি বলছে ইনি আমাদের লোক না।’ সুশান্তের মৃত্যু বলিউডের মেরুকরণকে আরও স্পষ্ট করে দিয়েছে। এই গোটা ইন্ডাস্ট্রিটাই একটা ব্যবসা এবং এখানে ইনসাইডার-আউটসাইডার পলিসিই চলে বলে উঠে এসেছে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য। বিগ বস ১৪-র শুরুতেও ফের একবার সেই প্রসঙ্গ মনে করিয়ে দিলেন রাহুল বৈদ্য।

আরও পড়ুন: Bigg Boss 14: শুরু হয়ে গেল ‘যুদ্ধ’, সলমানের শো-তে এবারে প্রতিযোগী কারা?

এই সময় ডিজিটালের বিনোদন সংক্রান্ত সব আপডেট এখন টেলিগ্রামে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এখানে।



Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.