Mir-এর ‘টুম্পা সোনা’ পোস্টে কমেন্ট করে ট্রোল, ক্লাস ১০ও পাস করিনি জবাব Swstika-র


নিজস্ব প্রতিবেদন : ”ও টুম্পা সোনা, দুটো হাম্পি দে না!!!” ভাইরাল এই গানেই RJ সায়নের কাছ থেকে হাম্পি চাইলেন কৌতুকশিল্পী মীর। নাহ, সুমনা দাস নন, RJ সায়নই এখন মীরের ‘টুম্পা’। তাঁর সঙ্গেই রোম্যান্সে মজলেন মীর। আর মীরের এই পোস্টে কমেন্ট করে ট্রোল হতে হল অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়কে। 

ঠিক কী ঘটেছে?

 সায়ন ঘোষের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে মীর লেখেন,  ”ও টুম্পা সোনা, দুটো হাম্পি দে না!!! Shooting fun with the হারা-মীর হাতবাক্স Sayan Ghosh”। প্রসঙ্গত সায়নের সঙ্গে মীরের বন্ধুত্ব অবশ্য বহু পুরনো। ‘রেস্ট ইন প্রেম’ ওয়েব সিরিজের দৌলতে বর্তমানে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন সায়ন। বিশেষ করে ওয়েব সিরিজের ‘টুম্পা সোনা’ গান সুপার হিট তো বটেই, একইসঙ্গে ভাইরাল। পুরনো বন্ধুর সঙ্গে ছবি পোস্ট করে ক্যাপশানে তাই ‘টুম্পা সোনা’র লাইনটাই ধার করেছেন RJ তথা কৌতুকশিল্পী।

এদিকে মীরের এই পোস্টে কমেন্টে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় লেখেন, ” প্লিজ ওকে বলে দাও আমি ওর ফ্যান। আর টুম্পা সোনা আমার নতুন মন্ত্র। আর তোমার চুলটা সুপার সে উপর।” এদিকে স্বস্তিকাকে তাঁর এই কমেন্টের জন্যই ট্রোল হতে হল।

 

 স্বস্তিকা তাঁর কমেন্টে ‘মন্ত্র’ বদলে সংস্কৃত উচ্চারণ ‘মন্ত্রা’ লিখেছেন। আর তাতেই এক নেটিজেনের দাবি কেন ‘মন্ত্রা’ লিখবেন? তিনি কি অবাঙালি হওয়ার চেষ্টা করছেন? হিন্দি অধ্যুষিত এলাকার প্রভাব পড়েছে অভিনেত্রীর উপর। তবে ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী নন স্বস্তিকাও। নেটিজেনের বানানের ক্লাস নিয়ে পাল্টা জবাবে স্ব  তিনি লিখেছেন, ”hindi, hindhi নয় আর আমি অশিক্ষিত, বাংলা জানিনা।” স্বস্তিকার সমর্থনে আক্রমণকারী নেটিজেনকে জবাব দিয়েছেন অপর এক নেটিজেন। তিনি তাঁকে জানিয়েছেন মন্ত্রা আসলে সংস্কৃত শব্দ। বাংলার ‘মন্ত্র’, আর হিন্দিতে ‘মন্তর’।

পাল্টা উত্তরে ওই নেটিজেন আবারও অভিনেত্রীকে বাংলায় টাইপ করার পরামর্শ দিয়েছেন। স্বস্তিকা তাতে কিছুটা মজা করেই লিখেছেন, তিনি ক্লাস টেনও পাশ করেননি, তাই বাংলা, ইংরাজি, হিন্দি কোনওটাই ঠিক করে জানেন না।

স্বস্তিকার কমেন্টে অনেকেই আবার তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন।





Continue Reading

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.